আজ বাংলাদেশে আজ ১০ মে ২০২১ স্বর্ণ ও রূপা যাকাতের মূল্য কত | Bangladesh Gold Price | BD Gold Price - Gold Price Bangladesh

আজ বাংলাদেশে আজ ১০ মে ২০২১ স্বর্ণ ও রূপা যাকাতের মূল্য কত


bd gold price

এক নজরে দেখে নিন


আজ বাংলাদেশে আজ ১০ মে, ২০২১ স্বর্ণ ও রূপা যাকাতের মূল্য কত?

টিপস


গতকালের তুলনায় আজ বাংলাদেশে স্বর্ণ ও রুপা যাকাতের দাম কোন পরিবর্তন হয় নি।



ঘরে ব্যবহার্য আসবাবপত্র ও সর্ব প্রকার ঋণ বা দেনা বাদে যার নিকট অন্তত সাড়ে সাত ভরি স্বর্ণ অথবা সাড়ে বায়ান্ন ভরি রুপা বা এর সম পরিমাণ টাকা পয়সা থাকে বা ব্যবসার মালামাল থাকে তাহলে উহার মূল্যের শতকরা আড়াই (২.৫০%) টাকা যাকাত দিতে হবে।



কারো কাছে যদি ৭.৫ ভরি বা তার থেকে বেশি পরিমান স্বর্ণ অথবা ৫২.৫ ভরি বা তার থেকে বেশি পরিমান রূপা পূর্ণ এক চন্দ্র বছর জমা থাকে, তাহলে তাকে সেটার মোট মূল্যের ৪০ ভাগের ১ ভাগ বা, শতকরা ২.৫ টাকা (প্রতি ১০০ টাকায় ২.৫ টাকা) হারে যাকাত দিতে হবে।



স্বর্ণের যাকাত কিভাবে হিসাব করতে হবে ?



ক্যারেট প্রতি ভরির মূল্য গ্রামে যাকাত ২.৫% ভরিতে যাকাত ২.৫%
২২ ক্যারেট ৳73,483.20 ৳ 126.00 ৳ 1,469.66
২১ ক্যারেট ৳70,333.92 ৳ 120.60 ৳ 1,406.68
১৮ ক্যারেট ৳61,585.92 ৳ 105.60 ৳ 1,231.72
সনাতন পদ্ধতি ৳51,263.28 ৳ 87.90 ৳ 1,025.27

"২২ ক্যারেট স্বর্ণের প্রতি গ্রামের মূল্য 6300 টাকা হলে প্রতি ভরি স্বর্ণের মূল্য আসে 73483.2 টাকা। তাহলে গ্রাম প্রতি বিশ শতাংশ বাদ দিয়ে মূল্য আসে, 5040 টাকা। আবার ভরি প্রতি বিশ শতাংশ বাদ দিয়ে মূল্য আসে 58786.56 সুতরাং,গ্রাম প্রতি ২.৫% যাকাত আসে 126 টাকা। এবং ভরি প্রতি ২.৫% যাকাত আসে 1469.664 টাকা।২১ ক্যারেট স্বর্ণের প্রতি গ্রামের মূল্য 6030টাকা হলে প্রতি ভরি স্বর্ণের মূল্য আসে 70333.92টাকা। তাহলে গ্রাম প্রতি বিশ শতাংশ বাদ দিয়ে মূল্য আসে,4824টাকা। আবার ভরি প্রতি বিশ শতাংশ বাদ দিয়ে মূল্য আসে56267.136সুতরাং,গ্রাম প্রতি ২.৫% যাকাত আসে 120.6টাকা। এবং ভরি প্রতি ২.৫% যাকাত আসে1406.6784টাকা।১৮ ক্যারেট স্বর্ণের প্রতি গ্রামের মূল্য 5280টাকা হলে প্রতি ভরি স্বর্ণের মূল্য আসে 61585.92টাকা। তাহলে গ্রাম প্রতি বিশ শতাংশ বাদ দিয়ে মূল্য আসে,4224টাকা। আবার ভরি প্রতি বিশ শতাংশ বাদ দিয়ে মূল্য আসে49268.736সুতরাং,গ্রাম প্রতি ২.৫% যাকাত আসে 105.6টাকা। এবং ভরি প্রতি ২.৫% যাকাত আসে1231.7184টাকা।এছাড়া প্রচলিত সনাতন পদ্ধতিতে স্বর্ণের প্রতি গ্রামের মূল্য4395টাকা হলে প্রতি ভরি স্বর্ণের মূল্য আসে 51263.28টাকা। তাহলে গ্রাম প্রতি বিশ শতাংশ বাদ দিয়ে মূল্য আসে,3516টাকা। আবার ভরি প্রতি বিশ শতাংশ বাদ দিয়ে মূল্য আসে41010.624সুতরাং,গ্রাম প্রতি ২.৫% যাকাত আসে 87.9টাকা। এবং ভরি প্রতি ২.৫% যাকাত আসে1025.2656টাকা।"


পরিমাপ


১ ট্রয় আউন্স = ৩১.১০৩৪৭৬৮ গ্রাম

১ ভোরি = ১১.৬৬ গ্রাম

১ তোলা = ১ ভোরি

১ ভোরি = ১৬ আনা

১ আনা = ৬ রথী

পরিমাপ


১ রথী= ১০ পয়েন্ট

মূল্য মানের তারিখ অনুসারে বাজার মূল্যের 2.5% হিসাবে যাকাত গণনা করা উচিত ।

শতকরা ২.৫ টাকা (প্রতি ১০০ টাকায় ২.৫ টাকা) হারে যাকাত দিতে হবে।


🌏 ইসলামের পাঁচটি স্তম্ভ


যাকাত ইসলামের পাঁচটি স্তম্ভের একটি এবং ইবাদতের আমল। যাকাতের অর্থ পবিত্র করাএবং তাই আমাদের নিজস্ব সম্পদ শুদ্ধ করার জন্য সমস্ত মুসলমান তাদের প্রয়োজন অনুসারে সাহায্য করার জন্য একজনের সম্পদের একটি অংশ প্রদান করতে বাধ্য ।


🌏 নিসাব পরিমান স্বর্ণ ও রূপা


নিসাব পরিমান স্বর্ণ ও রূপা, ক্যাশ টাকা পূর্ণ এক বছর না হওয়া পর্যন্ত যাকাত দেওয়া ফরয হবেনা। যেইদিন বছর পূর্ণ হবে সেইদিন যাকাত দেওয়া ফরয হবে ।


🌏 রমযান মাসে যাকাত


রমযান মাসে যাকাত দিতে হবে এমন কোন কথা নেই, যার উপর যেইদিন যাকাত ফরয হবে তখনই যাকাত দিতে হবে। উল্লেখ্য, বছর গণনা করতে হবে চাঁদের হিসাব অনুযায়ী, সৌর বৎসর নয় ।


🌏 আসনাফ (বিভাগ)


"যাকাত ৮ টি আসনাফ (বিভাগ) মানুষের মধ্যে বিতরণ করা হয়। ""ফকির"" যার কাছে বস্তুগত সম্পদ বা জীবিকা নির্বাহের উপায় নেই। ""মিসকিন"" মৌলিক চাহিদা মেটাতে এবং জীবন ধারণ করতে অক্ষম সহ একজন ।""আমিল"" যাকাত সংগ্রহের জন্য নিযুক্ত একজন। ""মুয়ালাফ"" যিনি ইসলাম গ্রহণ করেন। ""রিকাব"" যে নিজেকে দাসত্ব বা দাসত্বের শেকল থেকে মুক্ত করতে চায় । ""ফিসাবিলিল্লাহ"" যে ব্যক্তি আল্লাহর পথে লড়াই করে।""ইবনেস সাবিল"" যিনি ভ্রমণে আটকে আছেন।"


🌏 কত পরিমানের উপরে যাকাত ?


যাকাত পুরো সম্পদের উপরেই দিতে হয়। অনেকে মনে করে নিসাব পরিমানের উপরে যেটা হয়, শুধুমাত্র সেই পরিমানের উপরে যাকাত দিতে হয় এটা ঠিক না ।


স্বর্ণ, রূপা ও নগদ টাকার নিসাব আলাদা আলাদা হিসাব করা হবে, একসাথে করে যাকাত দিতে হবেনা। অর্থাৎ, কারো কাছে ৬ ভরি স্বর্ণ আর ৪৮ তোলা রুপা আছে, তাহলে তাকে দুইটার মূল্য যোগ করে একসাথে নিসাব হিসাব করে যাকাত দিতে হবেনা ।কারণ, দুইটার নিসাব আলাদা, তাদের হিসাবও আলাদা হবে। তবে, স্বর্ণ + টাকা বা রুপা+টাকা মিলে নিসাব বা তার বেশি হলে যাকাত দিতে হবে ।




গয়না উপহার দেওয়া উপর যাকাত



মেয়ে বা মা, বোনদের যদি মালিক করে গয়না উপহার দেওয়া হয়, তাহলে তাদের প্রত্যেকের হিসাব আলাদা হবে। যেমন ধরুন, ৩ বোনের মিলে ৭.৫ ভরি বা তার বেশি ১০/১৫ ভরি স্বর্ণ হয়, কিন্তু এককভাবে কারোরই যদি ৭.৫ ভরি স্বর্ণ না হয়, তাহলে কাউকেই যাকাত দিতে হবেনা। তবে, কেউ যদি নিজের মেয়েদের স্থায়ী মালিক না করে, গয়নাগুলো শুধু ব্যবহার করতে দেয়, তাহলে সবগুলো মিলিয়ে ৭.৫ ভরি বা তার বেশি হলে তার সম্পূর্ণটার উপরে তাকে যাকাত দিতে হবে ।



নিজের মেয়েদের স্থায়ী মালিক না করে কি যাকাত দেওয়া যাবে?



"তবে, কেউ যদি নিজের মেয়েদের স্থায়ী মালিক না করে, গয়নাগুলো শুধু ব্যবহার করতে দেয়, তাহলে সবগুলো মিলিয়ে ৭.৫ ভরি বা তার বেশি হলে তার সম্পূর্ণটার উপরে তাকে যাকাত দিতে হবে ।নারীরা যেই গহনাগুলো ব্যবহার করেন, সেইগুলোর উপরেও যাকাত দিতে হবে।যদিও অনেকে মতভেদ করেছেন তবুও ব্যবহার করা স্বর্ণর যাকাত দিয়ে দেয়া উত্তম। আল্লাহ সবচেয়ে ভাল জানেন । যার কাছে সাড়ে সাত ভরির বেশী আছে, তিনি আজকের দেখানো মূল্যের সাথে মোট যত ভরি সেটা গুণ করলেই কত টাকা যাকাত দিতে হবে সেটা পেয়ে যাবেন ।"




🔷দৃষ্টি আকর্ষণ:বাংলাদেশে সোনা কেনার জন্য হট টিপস - BD Gold Price

  • নিশ্চিত করুন যে, আপনি যে ধরনের সোনা কিনছেন তা প্রকৃত সোনা বা সরকারি সার্বভৌম গ্যারান্টি দ্বারা সমর্থিত।
  • নিশ্চিত করুন যে, আপনি যে কোম্পানির সাথে কাজ করছেন তা হেজ বা লিজ দিতে পারে না।.
  • নিশ্চিত করুন যে, আপনি শুধুমাত্র বাংলাদেশ সরকার দ্বারা প্রত্যয়িত গয়না কিনছেন।
  • সবসময় বড় দোকান থেকে সোনা কেনার চেষ্টা করুন। কারণ হল এই ধরনের দোকানে আকর্ষণীয় ডিজাইনের মানসম্পন্ন হলমার্ক Hallmark পণ্য সরবরাহ করা হয়।
  • ভাল দোকান মালিকদের সঙ্গে সোনার লেনদেন করুন। কেননা তারা সৎ।
  • এমন একটি দোকান থেকে সোনা কেনার চেষ্টা করুন যেটি দীর্ঘদিন ধরে সততার সাথে ব্যবসা করে আসছে। কারণ তারা সৎ এবং লাভ কম করে।
  • সোনা কেনার আগে দাম দেখে নিন। কারণ দাম প্রতিদিন ওঠানামা করে। buying gold
  • কেনার আগে সোনার রিটার্ন নীতিটি সাবধানে অনুসরণ করুন বা দোকানের মালিককে জিজ্ঞাসা করুন। কারণ এটা খুবই জরুরি।
  • হলমার্ক সংযুক্ত আছে কিনা তা দেখতে সোনার পণ্য কেনার পরে নগদ মেমো চেক করুন। এটিও খুব গুরুত্বপূর্ণ
  • সব সোনা কেনার মেমো খুব সাবধানে সংরক্ষণ করুন। এর কারণ হল সোনা বিক্রি করার সময় দোকান মালিক নগদ মেমো ছাড়া ন্যায্য মূল্য ফেরত দিতে পারে না।